ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের খোলা মাঠে সন্তান প্রসব করলেন এক মা!! লঙ্ঘিত মানবাধিকার।

ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের খোলা মাঠে সন্তান প্রসব করলেন এক মা!! লঙ্ঘিত মানবাধিকার।

মো: আশরাফুল আলম, ফুলবাড়ী দিনাজপুর প্রতিনিধিঃঃ দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে একজন প্রসুতি রোগীকে হাসপাতাল থেকে বের করে দিলে হাসপাতালের ভেতরের খোলা মাঠে সন্তান প্রসব করেন পার্বতীপুর উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের বাঁশপুকুর গ্রামের গরীব অসহায় আবু তাহেরের স্ত্রী রীনা পারভীন নামে এক মহিলা।

জানা যায়, প্রসব বেদনা শুরু হলে ১২আগষ্ঠ রবিবার সকাল সাড়ে ৫ টায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে আসেন। তখন কর্তব্যরত ডাক্তার ও নার্স রোজিনা পারভীন ও আফরোজা বেগম ঐ প্রসুতিকে পার্শ্ববর্তী ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তখন ঐ প্রসুতি বলেন যেহেতু তারা গরীব তাই ক্লিনিকে ডেলিভারী করার মত অর্থ তাদের নেই। আপনারা আমাকে এই হাসপাতালেই নরমাল ডেলিভারীর ব্যবস্থা করে দেন। নার্সরা প্রসুতির এই কথায় কর্ণপাত না করে তাকে হাসপাতাল থেকে বের করে দেন।

তখন নিরুপায় হয়ে একেবারেই খোলা মাঠে ড্রেনের পাশে সন্তান প্রসব করেন বলে প্রসূতি ও প্রসূতির ভাবী রোখসানা জানান। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী মহছেনা বেগম জানান,এলাকাবাসী বিষয়টি প্রত্যক্ষ করলে তাদের চাপে প্রসুতি ও নবজাত সন্তানকে হাসপাতালের বেডে নেয়া হয়। তারা এখন মহিলা ওয়ার্ডের ২৭ নম্বর বেডে রয়েছেন। এবিষয়ে,দুপুর ১২টায় টিএইচও কর্মকর্তা ডা.নুরুল ইসলাম এর সাথে কথা বলতে গেলে তাকে অফিসে পাওয়া যায়নি। এমনকি মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এমনকি,আরএমও কে বিষয়টি অবগত করলে তিনি এড়িয়ে যান। বর্তমানে অভিযুক্ত চিকিৎসক ও নার্সরা গা ঢাঁকা দিয়েছেন। প্রসূুিতর বড় ছেলে রিপন জানান,গণমাধ্যম কর্মীরা প্রসূতির সাথে স্বাক্ষাত করতে গেলেও দায়ীত্বরত নার্সরা রোগির সঙ্গে বৈরী আচরন করছেন। এই অসহায় অবস্থায় তারা সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কতৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করছেন। এলাকাবাসী জানান, ফুলবাড়ী স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের চিকিৎসা ও খাদ্যমানের অবস্থাও বেহাল। এখানে একজন মাত্র এমবিএস ডাক্তার, তিনিও থাকে নিজ কাজে ব্যাস্ত। এতে রোগীরা কাঙ্খিত চিকিৎসা সেবা থেকে হচ্ছেন বঞ্চিত।##

Comments

comments